ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৯

ফেলনা টি-ব্যাগের ভিন্ন ব্যবহার

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১০:৩১, ২১ আগস্ট ২০২২  

ফেলনা টি-ব্যাগের ভিন্ন ব্যবহার

ফেলনা টি-ব্যাগের ভিন্ন ব্যবহার

প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠে ধোঁয়া এক চায়ে চুমুক না দিয়ে যেন দিনই শুরু হয় না। সাধারণত চা বানানোর পর টি ব্যাগ বা চা পাতি ফেলে দেয়া হয়। কিন্তু চা পাতা ফেলে না দিয়ে কাজে লাগাতে পারেন। নিত্যদিনের নানা কাজে এটা ব্যবহার করা যায়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক টি ব্যাগ বা চা পাতার ভিন্ন ব্যবহার-  

বাসনপত্রের দাগ তুলতে
আগুনে পোড়া কিংবা ব্যবহারজনিত কারণে বাসনপত্রে ছোপ ছোপ দাগ লেগে যায়। যা সহজে উঠতে চায় না। এই দাগ তুলতে ব্যবহার করতে পারেন ফেলে দেয়া টি ব্যাগ। টি ব্যাগ দাগ পড়া বাসনে কিছুক্ষণ ঘষুণ। কিছুক্ষণ রেখে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন দাগ উঠবে। চকচকও করবে বাসন। 

মাইক্রোওয়েভ ওভেন পরিষ্কারে
মাইক্রোওয়েভ ওভেন পরিস্কারের জন্য ব্যবহার করতে পারেন ফেলে দেয়া টি ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন। ওভেনের যে অংশে দাগ লেগেছে, সেখানে কিছুক্ষণ টি ব্যাগ ঘষুন। দেখবেন ম্যাজিকের মতো কাজ করবে। দাগ উঠে যাবে নিমিষেই। 

টবে সার হিসেবে ব্যবহার
চা পাতা প্রাকৃতিক জৈব সার। প্রতিদিনের ব্যবহৃত টি ব্যাগ গুলো শুকিয়ে জমিয়ে রাখুন। এগুলো টবের গাছের গোড়ায় দিন। দেখবেন সতেজ হয়ে উঠবে আপনার প্রিয় গাছগুলো।

চুলের যত্নে 
শ্যাম্পু করার পরে চুল ধুয়ে নিয়ে চা পাতা ভিজানো পানিতে চুলটা শেষবার ধুয়ে নিন। এরপর চুলে আর পানি দেবেন না। চা পাতা ধোয়া পানি আপনার চুলে ন্যাচারাল কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করবে।

বাথ টি
ব্যবহার করার পর বাথটবে আপনার গোসলের পানিতে কয়েকটি টি ব্যাগ রেখে দেওয়া যেতে পারে। একে ‘বাথ টি’ বলে। সেই পানিতে গোসল করলে অনেক বেশি ফ্রেশ লাগবে। টি বাথ নিলে ত্বকের ঔজ্জ্বল্যও অনেকটা বাড়ে। চুলের জন্যও এই বাথ টি বেশ ভালো। অনেকেই এখন এই বাথ টি নিচ্ছেন। 

সর্বশেষ
জনপ্রিয়