ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ৩ ১৪২৯

শরীয়তপুরে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে চার লেন সড়কের কাজ

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১:৪৬, ৫ জুলাই ২০২২  

শরীয়তপুর সদর থেকে সখিপুরের নরসিংহপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত এবং পদ্মাসেতু এ্যাপ্রোচ থেকে শরীয়তপুর সদর পর্যন্ত ৫৮ কিলোমিটার দুটি চার লেন সড়কের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে।

শরীয়তপুরবাসীর স্বপ্নের এই সড়ক দু’টির কাজ সম্পন্ন হলে ঢাকাসহ দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল, পূর্বাঞ্চলসহ সারাদেশের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগে নিরাপদ ও সহজ নেটওয়ার্ক তৈরির মাধ্যমে এক নতুন দিগন্তের দ্বার উন্মোচন হবে। যা শরীয়তপুরকে যোগাযোগ, শিল্পায়ন ও কৃষিসহ সার্বিক উন্নয়নের শেখরে পৌঁছে দেবে। 

জানা যায়, শরীয়তপুর থেকে নরসিংহপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত ৩১ কিলোমিটার এবং পদ্মাসেতুর এ্যাপ্রোচ থেকে শরীয়তপুর পর্যন্ত ২৭ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক দুটি দুই হাজার ৫৪৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। যা আগামী ২০২৩ সালের মধ্যে কাজ শেষ হবে।

আন্তজেলা ট্রাকচালক মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, শরীয়তপুর থেকে নরসিংহপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত সড়কটি নির্মিত হলে দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চল থেকে এই আঞ্চলিক সড়ক দিয়ে মোংলা বন্দর থেকে চট্টগ্রাম যাতায়াত সহজ হবে। চার লেন এই সড়কটির কাজ শেষ হলে আমরা নিরাপদে দ্রুত গন্তব্যে কম খরচে পণ্য পৌঁছাতে পারবো।

ভেদরগঞ্জ উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা খান জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমাদের সারা জীবনের লালিত স্বপ্নের এই চার লেন সড়কটির চলমান কাজ দেখে এখন সকলেই আনন্দিত। প্রধানমন্ত্রীকে এই জন্য ভেদরগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা। 

জাজিরা উপজেলার হৃদয় আহমেদ বলেন, আমাদের দীর্ঘদিনের কাঙ্খিত পদ্মা সেতুর এ্যাপ্রোচ থেকে শরীয়তপুর সদর পর্যন্ত সড়কটি চার লেনের চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই। সড়কটি হলে পদ্মা সেতুর চূড়ান্ত ফলাফল ভোগ করতে পারবো। যা আমাদের অঞ্চলের মানুষের অর্থনীতির উন্নয়নের পথকে সমৃদ্ধ করবে। আমাদের যাতায়াত সহজ হবে। 

শরীয়তপুর সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ভূঁইয়া রেদওয়ানুর রহমান জানিয়েছেন, দুই হাজার ৫৪৩ কোটি টাকা ব্যয়ে শরীয়তপুরে ৫৮ কিলোমিটারের দুটি চার লেনের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। ২০২৩ সালের মধ্যে কাজ শেষ করার লক্ষ্য নিয়ে আমরা দিন-রাত কাজ করছি। আশা করছি আগামী দুই বছরের মধ্যে সড়ক দুটির কাজ সম্পন্ন হলে আর্থ সামাজিক উনয়নসহ শিল্প বাণিজ্যের অপার সম্ভাবনার দুয়ার সম্প্রসারিত হবে। 

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক সদিচ্ছা ও বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে সারা দেশের সড়ক যোগাযোগ উন্নয়নের অংশ হিসেবে শরীয়তপুরের এই দুটি চার লেন সড়কের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। শরীয়তপুরকে দেশের উন্নত ও আধুনিক দশটি জেলার একটিতে পরিণত করা হবে।  

সর্বশেষ
জনপ্রিয়