ঢাকা, বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৮

সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এসএসসি-সমমানের পরীক্ষা: শিক্ষামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০৮, ১৪ নভেম্বর ২০২১  

বক্তব্য রাখছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি

বক্তব্য রাখছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, এই পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের সুযোগ নেই, কেউ প্রশ্ন ফাঁসের চেষ্টা করলে বা গুজব ছড়ালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রোববার (১৪ নভেম্বর) রাজধানীর কয়েকটি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।  

মন্ত্রী বলেন, সারাদেশে এসএসসি, দাখিল ও ভোকেশনাল পর্যায়ে ২২ লাখের বেশি শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছে, আমরা সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করছি, কোথাও কোনো অনিয়ম পাওয়া গেলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি  আরও বলেন, একটি চক্র পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের গুজব রটানোর চেষ্টায় আছে, এ গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে মাদক দমনের মতো ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসময়  উপস্থিত ছিলেন- শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক, ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ প্রমুখ।

করোনা মহামারির বাধা কাটিয়ে অবশেষে আজ রোববার (১৪ নভেম্বর) থেকে শুরু হলো এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। মাধ্যমিকের স্তর পেরুতে এবার পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ২২ লাখের বেশি শিক্ষার্থী।

এই পরীক্ষায় সিট বসানো হয়েছে নির্দিষ্ট দূরত্ব মেনে। মাস্ক পরাসহ মানতে হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি।

এর আগে প্রশ্নফাঁসের শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে শিক্ষাবোর্ড জানিয়েছে, গুজব ছড়ালে নেওয়া হবে কঠোর ব্যবস্থা।

করোনার কারণে যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হয়নি ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষা। ছিল নানা অনিশ্চয়তা। সব বাধা কাটিয়ে সকালেই পরীক্ষার হলে বসেছে সারাদেশের ২২ লাখ এসএসসি পরীক্ষার্থী।

সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এবার পরীক্ষার সময় ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট। বিজ্ঞান শাখার পরীক্ষার্থীদের লিখিত অংশে ৮টি প্রশ্নের মধ্যে ২টি উত্তর দিতে হবে। আর এমসিকিউ অংশে ২৫টির মধ্যে ১২টির উত্তর। মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখার পরীক্ষার্থীদের লিখিত অংশে ১১টির মধ্যে ৩টি এবং এমসিকিউ অংশে ৩০ টির মধ্যে ১৫টি উত্তর দিতে হবে।

আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব হোসেনে আরা খাতুন বলেন, আসন বিন্যাসে নিশ্চিত করা হয়েছে সামাজিক দূরত্ব রক্ষার বিষয়টি।

পরীক্ষার শতভাগ প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে জানিয়ে আন্তঃ শিক্ষা বোর্ড সমন্বয়ক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, প্রশ্নফাঁসের নামে গুজব ছড়ালে নেওয়া হবে ব্যবস্থা।

কোনো পরীক্ষার্থীর মধ্যে করোনার লক্ষণ দেখা গেলে আলাদাভাবে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য প্রতি কেন্দ্রই থাকবে আইসোলেশন সেন্টার।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়