ঢাকা, বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৮

বাংলাদেশের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে ভারতের আগ্রহ প্রকাশ

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:৪৯, ২৪ নভেম্বর ২০২১  

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

একে অপরের নিরাপত্তা ও পারস্পরিক সক্ষমতা বৃদ্ধিতে বাংলাদেশের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে ভারত। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং এমনটিই জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, পারস্পরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি, অপ্রীতিকর পরিস্থিতিতে সাড়া দেওয়া এবং জনগণের নিরাপত্তা ও সমৃদ্ধির জন্য একে অপরের সঙ্গে থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে গত সোমবার ভারতে বাংলাদেশ হাই কমিশনে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন রাজনাথ সিং।

স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথম ভারতের কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী এবং দেশটির তিন বাহিনীর প্রধান বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনী ও ১৯৭১ সালের যুদ্ধে অংশ নেওয়া সাবেক সেনাসহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে এই কর্মসূচিতে যোগ দেন।

বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে শক্তিশালী অংশীদারিত্বের কথা উল্লেখ করে রাজনাথ সিং বলেন, উভয় দেশই অভিন্ন চ্যালেঞ্জ- যেমন দারিদ্র্য-ক্ষুধা, সন্ত্রাসবাদ-চরমপন্থী মতাদর্শের উত্থান এবং জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতির অনুপ্রেরণামূলক নেতৃত্ব ছিল দেশের জনগণের স্বাধীনতার সংগ্রামে আলোর দিশারী। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাংলাদেশের উন্নয়নের পথে ক্রমাগত এগিয়ে যাওয়ার ভিত্তি গড়ে তোলার কাজ করছে।

ভারতের মন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধকে বিংশ শতাব্দীর ইতিহাসে এক অভূতপূর্ব ঘটনা হিসেবে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, এটি অন্যায়-নৃশংসতা এবং নিপীড়নের বিরুদ্ধে নৈতিক লড়াই ছিল।

একই সঙ্গে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে পেশাদারিত্ব ও অঙ্গীকারের কারণে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বিশ্বব্যাপী সম্মানিত বলে উল্লেখ করেন তিনি।

প্রতিরক্ষা সরঞ্জামের জন্য ভারত বাংলাদেশকে ৫০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ প্রদান করেছে উল্লেখ করে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন, এই অঙ্গীকার কেবল সম্পদ অর্জনই নয়, প্রতিরক্ষা সামগ্রীর সহ-উন্নয়ন ও সহ-উৎপাদনেও যৌথ কার্যক্রমকে উৎসাহিত করবে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়