ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ১ ১৪২৮

দুই গোলে এগিয়ে থেকেও জয়বঞ্চিত আর্জেন্টিনা

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:০৭, ৯ জুন ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের এবারের সূচিতে কোনো ম্যাচই জিততে পারল না লাতিন আমেরিকার অন্যতম শক্তিশালী দল আর্জেন্টিনা। প্রথমে চিলির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্রয়ের পর এবার কলম্বিয়ার বিপক্ষেও জয় পেল না লিওনেল স্কালোনির দল।

বুধবার ভোরে কলম্বিয়ার মাঠে খেলতে গিয়ে ২-২ গোলে ড্র করেছেন লিওনেল মেসিরা। ম্যাচের আট মিনিটের মধ্যেই জোড়া গোল করে এগিয়ে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা। পরে ৫১ মিনিটে গোল হজম করলেও, জয়ের পথেই এগুচ্ছিল দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

কিন্তু ম্যাচের একদম শেষ মুহূর্তে দ্বিতীয় গোল খেয়ে স্বাগতিকদের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই বাড়ি ফিরেছে আর্জেন্টাইনরা। পয়েন্ট খোয়ানোর পাশাপাশি গুরুতর চোটের কারণে শুরুর একাদশের গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজকেও হারিয়েছে আর্জেন্টিনা।

অথচ পুরো ম্যাচজুড়েই দারুণ সব সুযোগ তৈরি করেছে আর্জেন্টিনা, জাগিয়েছে গোলের সম্ভাবনা। কিন্তু কলম্বিয়ার গোলরক্ষক ডেভিড ওসপিনার দুর্দান্ত সব সেভের কারণে প্রথম দশ মিনিট পর আর গোলের দেখাই পায়নি তারা। উল্টো শেষ সময়ের গোলে দুইটি মূল্যবান পয়েন্ট খুইয়েছে আলবিসেলেস্তেরা।

আগের ম্যাচে চিলির সঙ্গে প্রথম গোল করেও শেষ পর্যন্ত জেতা হয়নি আর্জেন্টিনার। আজও প্রায় একই চিত্র। ম্যাচের মাত্র তৃতীয় মিনিটেই দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ডিফেন্ডার ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো। ডান দিক থেকে করা রদ্রিগো ডি পলের দারুণ ফ্রি কিকে লাফিয়ে ওঠা হেডে গোলটি করেন সিরি 'আ'র ২০২০-২১ মৌসুমের সেরা ডিফেন্ডার।

দ্বিতীয় গোল পেতে মাত্র পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করতে হয় আর্জেন্টিনাকে। অধিনায়ক লিওনেল মেসি ডি-বক্সের মধ্যে শট নিতে ব্যর্থ হন। তবে সেই বল ক্লিয়ার করতে পারেনি কলম্বিয়া। ফলে পেয়ে যান লেয়ান্দ্র পারেদেস। পরে লাউতারো মার্টিনেজের কাছ থেকে পাওয়া ফিরতি পাস ধরে কোনাকুনি শটে জালের ঠিকানা খুঁজে নেন পিএসজি মিডফিল্ডার।

ম্যাচের শুরুতেই জোড়া গোল করে উজ্জীবিত দেখা যায় স্কালোনির শিষ্যদের। কিন্তু ব্যবধান আর বাড়াতে পারেনি তারা। ম্যাচের ২৭ মিনিটে লাউতারোর জোরালো শট ঠেকান ওসপিনা। তবে পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বলে নিকো গনজালেজের শট পোস্ট ঘেঁষে চলে যায় বাইরে।

এর মিনিট সাতেক পর বড় ধাক্কা খায় সফরকারীরা। বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে কলম্বিয়ার ডিফেন্ডার ইয়েরি মিনার সঙ্গে ধাক্কা লেগে মাথায় ও কাঁধে গুরুতর চোট পান আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক মার্টিনেজ। প্রায় পাঁচ মিনিট ধরে মাঠেই চলে তার চিকিৎসা। পরে স্ট্রেচারে করে নিয়ে যাওয়া হয় বাইরে। বদলি হিসেবে নামেন আরেক গোলরক্ষক অগাস্টিন মার্চেসিন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এক গোল শোধ করে কলম্বিয়া। ডি-বক্সের মধ্যে ম্যাথিউস উরিবের মুখে আঘাত করে বসেন আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকোলাস ওটামেন্ডি। সঙ্গে সঙ্গে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি, হলুদ কার্ড দেখেন ওটামেন্ডি। সফল স্পট কিকে স্কোরলাইন ২-১ করেন লুইস মুরিয়েল।

খানিক বাদে গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন লিওনেল মেসি। তার দারুণ ফ্রি কিক ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান ওসপিনা। ম্যাচের ৮৫ মিনিটের সময় আবারও মেসি আর গোলের মাঝে দেয়াল হয়ে দাঁড়ান ওসপিনা। এবার ডি-বক্সের মধ্য থেকে নেয়া মেসির শট অসাধারণ দক্ষতায় ঠেকান তিনি।

আর্জেন্টিনার একের পর এক গোল না পাওয়ার হতাশা চূড়ান্ত মাত্রায় অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে। ডান দিক থেকে হুয়ান কুয়াদরাদোর ক্রসে হেড করেন মিগুয়েল বোরজা। বলটি ঠেকানোর মতোই ছিল, কিন্তু বদলি গোলরক্ষক মার্চেসিন ঝাঁপিয়ে হাত লাগালেও তা গোল হওয়া থেকে ফেরাতে পারেননি।

চিলির বিপক্ষে ১-১ ও কলম্বিয়ার বিপক্ষে ২-২; পরপর দুই ড্রয়ের পরেও অবশ্য পয়েন্ট টেবিলে অবস্থানের হেরফের হয়নি আর্জেন্টিনার। তবে শীর্ষস্থানে থাকা ব্রাজিলের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান বেড়ে দাঁড়িয়েছে ছয়।

লাতিন আমেরিকান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের অষ্টম রাউন্ডের খেলা শেষে ছয় ম্যাচে তিনটি করে জয়-পরাজয়ে আর্জেন্টিনার সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে সবকয়টি জিতে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। সমান ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে কলম্বিয়া।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়