ঢাকা, সোমবার   ২২ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৭ ১৪৩১

খাওয়ার পাশাপাশি মুখেও মাখা যায় যেসব ফল

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:০০, ৭ জুলাই ২০২৪  

খাওয়ার পাশাপাশি মুখেও মাখা যায় যেসব ফল

খাওয়ার পাশাপাশি মুখেও মাখা যায় যেসব ফল

উজ্জ্বল আর নিখুঁত ত্বকের আগ্রহ প্রায় সব বয়সি মানুষের মধ্যেই থাকে। তাই তো সুন্দর ত্বক পেতে আমরা কত রকমের পন্থাই না অবলম্বন করি। তবে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের ত্বকেও কিছু পরিবর্তন নজরে আসে। যেমন— বার্ধক্যের দাগ, মুখের সূক্ষ্ম রেখা, ব্রণ ইত্যাদি।

ভিটামিন ও খনিজে ভরা ফল শরীর ভালো রাখার জন্য অত্যন্ত জরুরি। শরীর ভালো থাকলে ভালো থাকবে ত্বকও। খাওয়ার পাশাপাশি সেই ফলের টুকরোই মেখে নিন মুখ ও হাত-পায়ে। ফলের গুণে ভিতর থেকে শরীর থাকবে ভালো, বাইরে থেকে ত্বকে আসবে লাবণ্য। আসুন জেনে নেই কোন ফল খাওয়ার পাশাপাশি ত্বকে ব্যবহার করা যায়। 

পেঁপে

ফাইবারে পরিপূর্ণ পেঁপেতে রয়েছে ভিটামিন এ, বি, সি। খাবার হজম করতে সাহায্য করে পেঁপে। পেট পরিষ্কার হয় এতে। খাবার হিসেবে পেঁপের গুণের কথা সকলেই জানেন। কিন্তু এই পেঁপে বেটে মুখে ও গায়ে মাখলে কালচে ত্বকে ১০ মিনিটেই ঔজ্জ্বল্য ফেরে, জানেন কি!যদি বাটার সময় না-ও পান, খেতে খেতেই এক টুকরো পেঁপে ঘষে নিন গালে।

তরমুজ

গরমের এই ফলে রয়েছে প্রচুর পানি। রয়েছে নানা রকম খনিজ ও ভিটামিন। শরীরে পানির অভাব পূরণ করে এই ফল। খাওয়ার পাশাপাশি তরমুজ বেটে লাগিয়ে ফেলুন মুখে। খানিক বাদে ধুয়ে নিলেই ত্বক হবে টান টান। বিশেষত শুষ্ক ত্বকে এই ফল আর্দ্রতা জোগাতে বিশেষ সাহায্য করবে। তরমুজের সঙ্গে মিশিয়ে নিতে পারেন কয়েক ফোঁটা মধুও। এতে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে। তরমুজের রস করে ছেঁকে বোতলে ভরে ফ্রিজে রেখে টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

আনারস

ভিটামিন এ, সি, কে ও অন্যান্য খনিজ থাকে আনারসে। স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ভালো আনারস। পাশাপাশি, রূপচর্চাতেও এর ভূমিকা কম নয়। বেসন, ওট্‌সের সঙ্গে আনারস বেটে নিন। ঘন এই মিশ্রণ এক্সফোলিয়েটর হিসেবে ব্যবহার করুন। এতে ত্বকের ময়লা বেরোবে, কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে। লাবণ্যও ফিরবে।

আপেল

ভিটামিন এ, সি ও অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট থাকে ফলটিতে। দিনে একটি করে আপেল খেলে শরীর ও স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। এই আপেল দিয়ে ত্বকের চর্চাও সেরে নিতে পারেন। খাবার সময় এক টুকরো আপেল সরিয়ে রেখে তা দিয়ে বানিয়ে নিন প্যাক। আপেল বেটে কয়েক ফোঁটা মধু মিশিয়ে পরিষ্কার মুখে দশ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। আপেলের গুণে গাল হবে আপেলের মতোই চকচকে।

আম

আম বললেই জিভে পানি আসে। ফজলি, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, খিরসাপাত, অরুনা, আম্রপালি, মল্লিকা, সুবর্ণরেখা,আলফানসো — কত রকমেরই যে আম হয়। স্বাদের জন্য ফলের রাজা বলা হয় আমকে। এই আমও কিন্তু হতে পারে রূপচর্চার উপাদান। আম খাবার পাশাপাশি খানিকটা বেটে তার সঙ্গে হলুদ ও আমন্ড তেল মিশিয়ে মুখে মেখে নিন। ফলের গুণে ফিরবে ত্বকের উজ্জ্বলতা।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়